#DU3morningtribune

হাফভাড়া দিতে চাওয়ায় যশোরে ঢাবি শিক্ষার্থীকে ব্যাপক মারধর

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিঃ

বাসে হাফভাড়া দিতে চাওয়ায় যশোরে মেহেদী হাসান (১৮) নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক শিক্ষার্থীকে পিটিয়েছে পরিবহন শ্রমিকরা।

শনিবার (১ অক্টোবর) চুড়ামনকাটিতে এ ঘটনা ঘটে। রোববার (২ অক্টোবর) রাতে যশোরের কোতোয়ালি থানায় তিনি এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

মারধরের শিকার মেহেদী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থী। তার বাড়ি যশোরের চৌগাছা উপজেলার মাড়িয়া গ্রামে। বাবার নাম শাহ আলম।

লিখিত অভিযোগে মেহেদী জানিয়েছেন, শনিবার সকালে তিনি চৌগাছায় যাওয়ার জন্য যশোরের চাঁচড়া থেকে বাসে ওঠেন। ভাড়া দেওয়ার সময় নিজে ছাত্র পরিচয় দিয়ে কার্ড দেখিয়ে হাফভাড়া দেন। তবে বাসের কন্ডাক্টর তার হাফভাড়া না নিয়ে চুড়ামনকাটিতে গিয়ে বাস থেকে নামিয়ে দেন।

সেখানে চৌগাছা বাস কাউন্টারের সুপারভাইজার বাগডাঙ্গা এলাকার ইব্রাহিম সরদারের ছেলে ইসরাইল (৪০) তাকে বেধড়ক মারপিট করেন। পরে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর রোববার (২ অক্টোবর) রাতে মেহেদী যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় অভিযোগ করেন।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনা তদন্তে সাজিয়ালি ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সেলিম হোসেনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তদন্তের পর আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.