#morningtribune#bd

সৌদি আরবের প্রধানমন্ত্রী হলেন মোহাম্মদ বিন সালমান

সৌদি আরবের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) এক রাজকীয় আদেশে তাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ।

রাজপরিবার শাসিত সৌদি আরবে পদাধিকার বলে বাদশাহই মন্ত্রিসভার প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী থাকছিলেন এতদিন। তবে সেই চর্চায় পরিবর্তন ঘটিয়ে পুত্র মোহাম্মদ বিন সালমানকে প্রধানমন্ত্রী পদে বসালেন বাদশাহ সালমান।

প্রিন্স খালিদ বিন সালমান, যিনি উপ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন, রাজকীয় ডিক্রি অনুসারেরাজ্যের নতুন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হবেন, যা সরকারী এসপিএ নিউজ এজেন্সি দ্বারা পরিচালিত হয়েছিল।

মন্ত্রিসভা রদবদলে ইউসুফ বিন আবদুল্লাহ বিন মুহাম্মদ আল বুনিয়ানকে শিক্ষা মন্ত্রী হিসাবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তিনি হামাদ আল শেখের স্থলাভিষিক্ত, যিনি ২০১৮ সাল থেকে এই পদে ছিলেন।

প্রিন্স আবদুল আজিজ বিন সালমান জ্বালানিমন্ত্রী, যুবরাজ ফয়সাল বিন ফারহান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আদেল আলজুবায়ের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিসেবে বহাল থাকবেন।

হজ ও ওমরাহ মন্ত্রী তৌফিক বিন ফাওজানের মতো স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল আজিজ বিন সৌদ বিন নায়েফ বিন আবদুল আজিজ, অর্থমন্ত্রী মোহাম্মদ আল জাদান এবং বিনিয়োগমন্ত্রী খালিদ এ আল ফালিহও তাদের পদ রেখেছেন।

এছাড়াও তাদের মন্ত্রী পদে বহাল রাখা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ডের মন্ত্রী হিসাবে প্রিন্স আবদুল্লাহ বিন বন্দর বিন আব্দুল আজিজ, বিচার মন্ত্রী হিসাবে ওয়ালিদ আল-সামানি এবং বাণিজ্য মন্ত্রী হিসাবে মাজিদ বিন আব্দুল্লাহ আল কাসাবি।

২০১৭ সালে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের নিয়োগের পর থেকে, দেশটি তেলের রাজস্বের উপর নির্ভরতা কমাতে চাওয়ার কারণে রাজ্যটি বেশ কয়েকটি পরিবর্তন করেছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.