#morningtribune

৬-০ তে পাকিস্তানকে গোলবন্যায় ভাসালো বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক:

বাংলাদেশ যে পাকিস্তানের বিপক্ষে গোল উৎসব করতে যাচ্ছে এমন ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিলো ম্যাচের আগেই। বাংলাদেশের মেয়েদের কন্ঠে ছিলো এই ম্যাচে বড় ব্যবধানে জয়ের প্রত্যয়। অধিনায়ক সাবিনার হ্যাটট্রিকে পাকিস্তানের জালে গুনে গুনে ৬ গোল দিয়েই নিজেদের মুখের কথার প্রমান রাখলেন মেয়েরা। ৬-০ গোলের এই জয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালের পথ অনেকটা সুগম হয়ে গেলো লাল-সবুজের জার্সিধারীদের।

অধিনায়ক সাবিনা মালদ্বীপের ম্যাচে জোড়া গোল করেছিলেন। আজ তিনি হ্যাটট্রিক করেছেন। প্রথমার্ধে বাংলাদেশ সাবিনার জোড়া গোলে ৪-০ গোলের লিডে ছিল।

দ্বিতীয়ার্ধের ১৩ মিনিটে সাবিনা নিজের হ্যাটট্রিক পুর্ণ করেন। ডান প্রান্ত থেকে করা ক্রসে সাবিনা লাফিয়ে হেড নিজের হ্যাটট্রিক ও দলের হয়ে পঞ্চম গোল করেন। ৭৬ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে ঝতু পর্ণা চাকমা জোরালো শটে গোল করলে বাংলাদেশের ৬-০ গোলের জয় নিশ্চিত হয়।

ম্যাচের তিন মিনিটেই বাংলাদেশকে লিড এনে দিয়েছিলেন মনিকা চাকমা। এক গোলে পিছিয়ে পড়ে পাকিস্তান খেলায় ফেরার চেষ্টা করে। নিজেরা গোল করতে সক্ষম না হলেও বাংলাদেশকে আর ব্যবধান বাড়াতে দেয়নি পরবর্তী ২৫ মিনিট।

২৯ মিনিটে পাকিস্তান বাংলাদেশকে আর রুখতে পারেনি। সিরাত জাহান স্বপ্না দারুণভাবে বক্সের মধ্যে শট করে গোল করেন। স্বপ্নার এই গোলের পর বাংলাদেশ আরো চেপে ধরে পাকিস্তানকে।

বাংলাদেশের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন পরের দশ মিনিটের মধ্যে জোড়া গোল করেন। দুটি গোলই তিনি বুদ্ধিদীপ্ততার সঙ্গে করেছেন। বক্সের মধ্যে বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে গোলরক্ষককে বোকা বানিয়েছেন।

পাকিস্তান কয়েক বছর ফিফার নিষেধাজ্ঞায় ছিল। সাফের এই টুর্নামেন্ট দিয়েই পাকিস্তান নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরেছে। প্রথম ম্যাচে তারা ভারতের বিপক্ষে ৩ গোলে হারের পর আজ হেরেছে আরো দ্বিগুণ ব্যবধানে। আজ দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারত জিতলে পাকিস্তান ও মালদ্বীপের ম্যাচটি হবে শুধু নিয়মরক্ষার আর বাংলাদেশ ও ভারতের ম্যাচটি হবে গ্রুপ সেরা নির্ধারণের।

Leave a Comment

Your email address will not be published.