#jnu#league

জবি ছাত্রলীগের কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার

জবি প্রতিবেদক

অবশেষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ওপর আরোপিত স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। 

গতকাল শনিবার (৫ নভেম্বর) কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে গত জুন ছয় মাসের মাথায় বিভিন্ন অভিযোগের প্রেক্ষিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‌বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে, ছাত্রলীগের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা কমিটির ওপর আরোপিত স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হলো।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহিম ফরাজি বাংল বলেন, ‌‌‘প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। তিনি হয়তো আমাদের কোনও দোষ পেয়েছিলেন তাই কমিটি স্থগিত করেছিলেন, পরে যখন দোষ খুঁজে পাননি আবার আমাদের বহাল করেছেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি জয় ভাই ও সাধারণ সম্পাদক লেখক দাদার প্রতি আমরা চির কৃতজ্ঞ।’

উল্লেখ্য, গত ১ জানুয়ারি এক বছরের জন্য শাখা ছাত্রলীগের ৩৫ সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। সর্বশেষ ১ জুলাই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়। এর কিছু দিন আগে রাষ্ট্রপতির ছেলের গাড়িচালককে মারধর করেন সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেনের এক অনুসারী। স্থগিত হওয়ার পর শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে পদধারী এক নেত্রীকে কুপ্রস্তাব, সভাপতির বিরুদ্ধে পদধারী এক নেতাকে প্রকাশ্যে জুতা দিয়ে মারা, টেন্ডার বাণিজ্য, আধিপত্য বিস্তারের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেন আংশিক কমিটির সিংহভাগ সদস্য। সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিতাদেশের তিন মাসের মাথায় তা প্রত্যাহার করা হলো।

Leave a Comment

Your email address will not be published.