#morning tribune

খেলার মাঠে মারামারি থামাতে গিয়ে মাথা ফাটল রাবি প্রক্টরের

রাবি প্রতিনিধি:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আন্তঃবিভাগ ফুটবল খেলায় গণ্ডগোল যেন পিছুই ছাড়ছে না। আন্তঃবিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্ট চলাকালে এক শিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনা শেষ হতে না হতেই আবারো মারামারিতে জড়ালো খেলোয়াড়রা। এবার রেফারির দেওয়া সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে হওয়া মারামারি  ঠেকাতে গিয়ে মাথা ফেটে আহত হয়েছেন প্রক্টর।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ কামাল স্টেডিয়ামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ ও রসায়ন বিভাগে আন্তঃফুটবল প্রতিযোগিতা চলছিল।নির্ধারিত সময়ে গোল শূন্য ছিল উভয়পক্ষ। তাই খেলা ট্রাইবেকারে গড়ায়। প্রথম দুটি শুটে গোল পায় রসায়ন বিভাগ।অপরদিকে প্রথম দুটি শুটে গোল দিতে ব্যর্থ হয় আইন বিভাগ। রসায়ন বিভাগের খেলোয়াড়ের তৃতীয় শুট গোলবারে সীমানা অতিক্রম করে ফিরে আসে। সেটাকে গোল হিসেবে ঘোষণা দেয় রেফারি। কিন্তু এ সিদ্ধান্ত না মেনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। সেটা নিয়েই মূল ঝামেলার সূত্রপাত।

তারপর গ্যালারিতে থাকা আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা গেট দিয়ে মাঠে ঢুকার চেষ্টা করলে বাঁধা দেয়া হয়। পরবর্তীতে খবর পেয়ে ঘটনা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টায় স্টেডিয়ামে যান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক। তিনি দরজা দিয়ে ঢুকতে গেলে পিছন দিক দিয়ে আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা জোরে দরজা ধাক্কা দেয়, ফলে দরজার আঘাতে মাথা ফেটে আহত হন প্রক্টর।

সহকারী প্রক্টর ড. আরিফুল রহমান জানান, এঘটনায় আহত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টার থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। এখন তিনি অনেকটা সুস্থ আছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. হাসিবুল আলম প্রধান ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, ‘প্রক্টরের সাথে যা ঘটেছে, সেটা একটা দুর্ঘটনাবসত ঘটেছে। তবে খেলাধুলা সম্প্রীতি বজায় রাখার একটি মাধ্যম। যার মাধ্যমে মানুষের মাঝে সম্প্রীতির সৃষ্টি হয়। তাই খেলাধুলা করতে গিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে এমন কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা কাম্য নয়। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীকেই সহনশীল আচরণ বজায় রাখতে হবে।’

Leave a Comment

Your email address will not be published.